২১ দিন বাড়িবন্দি! কি কি করতে পারেন সময় কাটানোর জন্য?(21 things to do during a lockdown to keep yourself entertained )

এরকম পরিস্থিতি আমরা কোনোদিন পড়িনি আর প্রার্থনা করব যেন কোনোদিন না পড়তে হয়. দেখে নেওয়া যাক যে সময় কাটানোর জন্যে এই ২১ দিনে ২১ টি ভিন্ন কাজ করে কিভাবে নিজেকে এন্টারটেইন করা যায়:
১, প্রথমেই আলমারি পরিষ্কার  করে ফেলুন.সুন্দর ভাবে গুছিয়ে ফেলুন  ৬ মাস ধরে যে জামাটা পড়েন নি, সেটা বিদায় দিন.
২. সুন্দর করে নিজের নখ টা কে কেটে ফেলুন. করোনার মার্কেট এ লম্বা নখ রাখবেন না. পায়ের ও হাথের যত্ন নিন. এতো বাসন মাজলে হাত রাফ হয়ে যাবে, তাই হ্যান্ড ক্রিম লাগাতে ভুলবেন না.
৩.বইয়ের আলমারি থেকে ওই  শরৎচন্দ্রের বইটা বার করুন. অনেক দিন তো ফোন ঘটালেন এবার একটু বইটা টা ঘাটুন.
৪.রান্না করতে করতে অনেক সিরিয়েল মিস হয়েছে? এবার একটা নতুন সিরিজ দেখা শুরু করুন অনলাইন পোর্টাল যেমন আমাজন বা নেটফ্লিক্স
৫.অনেকদিন কার্টুন দেখেন নি? তাই না? কার্টুন দেখার কোনো বয়েস নেই.. আজকেই টম এর সাথে সাথে জেরির পেছনে দৌড়ান .
৬. সুডোকু খেলেছেন? না খেলা হয়ে থাকলে পুরোনো খবরের কাগজ বের করে খেলতে পারেন .
৭. ফোনের ছবি গুলার ব্যাক আপ নিয়ে নিন . ফোন খারাপ হয়ে গেলে সারানোর লোক পাওয়া যাবে না .
৮.টিভির পাশের ড্রয়ার টা গুছিয়ে নিন
৯. কোনোদিন কেক বানিয়েছেন? ওভেন না থাকলে  এবার প্রেসার কুকারে কেক বানিয়ে দেখতে পারেন.
১০.উলের কাঁটা গুলো বার করুন – সেই স্কুল লাইফ এ করা অর্ধেক মাফলার টা শেষ করুন
১১. ব্যায়াম করা শুরু করে দিন
১২. নাচতে লজ্জা পান? দরজার ছিটকিনি টা দিয়ে , অঞ্চল টা কোমরে গুঁজে একটু  হয়ে যাক?
১৩.একটা নতুন ভাষা শিখুন… যদি ইংরেজি না জানেন, এটা দিয়েই শুরু করতে পারেন .
১৪. যাদেরকে বলেন যে সময়ে পাচ্ছি না ফোন করার, তাদের কে ফোন করুন.. খবর নিন, দেখবেন ভালো লাগবে
১৫.আলমারির মাথার ওপর রাখা ক্যারাম বোর্ড টা নাবান..  সন্ধে বেলা চায়ের সাথে একটা গেম পরিবারের সাথে খেলুন
১৬. শাড়ি লেপ তোষক গুলো কে রোদে দিন. আর এখন তো বাড়ি ভর্তি লোক, সাহায্যের হাত অনেক
১৭.ভাঙা ক্রেয়ন বা শক্ত তুলিগুলো বের করুন… যা মাথায় আসছে, আঁকুন.
১৮. সারাক্ষন ভাত দল সবজি – বাদ দিন .. এবার একটু ডিনারে স্যান্ডউইচ বানান. মানে নতুন কোনো ডিশ চেষ্টা করুন.
১৯. গাছ ভালো বাসেন? রান্না করতে করতে টমেটোর বিচি গুলো পুঁতে দিন . করোনা শেষ হতে না হতেই আপনার বারান্দায় হবে নতুন নতুন টমেটো.
২০. বাড়ির  সবাইকে লাইন এ বসিয়ে তেল ম্যাসাজ কোরান. এখন তো বাইরে বেরোনোর নেই, আপনার কন্যার কোনো অজুহাত নেই .
২১. নিজেকে জানুন. আমরা যা পৃথিবীকে দিয়ে এসেছি, এর ফল এটা. রাস্তা নোংরা করেছি, কুকুর মেরে তার মাংস বিক্রি করেছি . করোনা এসেছে, এটা আমাদের দোষ কি ভাবে আমরা নিজেকে পরিবর্তন করব. এই নিয়ে ভাবুন. নাহলে কিন্তু এই পৃথিবী আমাদের শেষ করে দেবে.